ছাত্রী উত্ত্যক্তের প্রতিবাদ করায় লক্ষ্মীপুরে যুবকের দুই পা ভেঙ্গে দিল বখাটেরা, ভিডিও ভাইরাল

 

নিউজ ডেস্ক : লক্ষ্মীপুরে ছাত্রী উত্ত্যক্তের প্রতিবাদ করায় নাসির উদ্দিন নামের এক যুবককে পিটিয়ে তার কোমরের হাড় ও দুই পা ভেঙ্গে দিয়েছে স্থানীয় বখাটেরা। রবিবার বিকালে দক্ষিন মান্দারী আমিন বাজার রোডের খলিল ভূঁইয়া বাড়ির দোকানের সামনে এ ঘটনা ঘটে। মুমুর্ষ অবস্থায় তাকে প্রথমে লক্ষ্মীপুর সদর হাসপাতাল ও পরে উন্নত চিকিৎসা দিতে রাতেই তাকে ঢাকার পঙ্গু হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে। এদিকে এ ঘটনার পর মাটিতে লুটে পড়া অবস্থায় ওই যুবককে উদ্ধার ও জড়িত দুইজনকে আটক করার ভিডিও এখন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ভাইরাল হয়ে পড়েছে। আহত নাসির উদ্দিন স্থানীয় চুনু ব্যাপারি বাড়ির আবদুল কুদ্দুসের ছেলে। সে ঢাকার একটি ফার্মেসীতে চাকুরী করেন, সম্প্রতি ছুটি নিয়ে বাড়ীতে আসে নাসির।

ভাইরাল হওয়া ভিডিওটিতে দেখা যায়, নাসির মাটিতে লুটে পড়ে আছেন, কেউ বলছেন ইভটিজিংয়ের প্রতিবাদ করায় তাকে মারধর করেছে বখাটেরা। ভিডিওটিতে আরো দেখা যায় বহিরাগত হিসেবে দুইজনকে স্থানীয় গ্রামবাসী আটক করে তাদের গালমন্দ করতে করতে পাশবর্তী একটি দোকানে আটকে রাখে।
জানা যায়, মান্দারি বহুমুখি উচ্চ বিদ্যালয়ের ৯ম শ্রেনীর ছাত্রী (সুবর্ণাকে) বেশ কয়েকদিন ধরে দিঘলী ইউনিয়নের দুর্গাপূর এলাকার কামালের ছেলে নিজাম স্কুলে আসা-যাওয়ার পথে উত্ত্যক্ত করে আসছে। গত দুই তিন দিন ধরে বিষয়টি নাসিরের চোখে পড়ে। রবিবার বিকালে স্কুল ছুটি হলে সুবর্না বাড়ি ফিরছিলেন। এসময় নিজাম তার তার পিছু নিলে বাধা দেয় নাসির। এতে নাসিরের উপর ক্ষিপ্ত হয়ে উঠে নিজাম। কিছুক্ষন পর নিজাম মুঠোফানে তার সহযোগী রিয়াদ, সাইমুন, হৃদয়, শাকিল, রাকিবসহ কয়েকজনকে ডেকে নিয়ে আসে। এসময় তারা নাসিরকে এলোপাতাড়ি পিটিয়ে আহত করে। এতে তার দুই পা ও কোমর ভেঙ্গে গেছে বলে জানান চিকিৎসক। পরে তার চিৎকার শুনে আশে পাশের লোকজন এগিয়ে এসে তাকে উদ্ধার করে। এসময় এলাকাবাসী নিজাম ও রিয়াদকে আটক করে পুলিশে সোপর্দ করে।
এ ব্যাপারে চন্দ্রগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আবুল কালাম আজাদ বলেন, ছাত্রী উত্ত্যক্তের প্রতিবাদ করায় যুবককে মারধর করার ঘটনায় দুইজনকে আটক করা হয়েছে। এ বিষয়ে মামলার প্রস্তুতি চলছে।