সম্মিলিত প্রচেষ্টায় আত্মহত্যা রোধ সম্ভব : আ স ম মাহতাব উদ্দিন

নিউজ ডেস্ক:
লক্ষ্মীপুরের পুলিশ সুপার আ স ম মাহতাব উদ্দিন লক্ষ্মীপুর নিউজের সাথে একান্ত সাক্ষাতকারে বলেছেন, ‘সম্মিলিত প্রচেষ্টায় আত্মহত্যা রোধ করা সম্ভব। ব্যক্তিগতভাবে গবেষনা করে দেখেছি, মাত্র কয়েকটি কারণে এ জেলায় আত্মহত্যার ঘটনা ঘটে। এর মধ্যে বেশীর ভাগ আত্মহত্যার ঘটনা হচ্ছে পরকীয়া সম্পর্কের কারণে। পরকীয়া প্রেমের সম্পর্ক যখন জানাজানি হয় তখন ওই নারী না যেতে পারে স্বামীর ঘরে, না পারে প্রেমিকের ঘরে, না যেতে পারে বাবার বাড়ি কিংবা শশুর বাড়ি। তখন আত্মহত্যার পথ খুঁজে নেয় তারা। আরেকটি কারণ হচ্ছে উড়তি বয়সী তরুণ তরুনীরা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে অপরিচিত লোকজনের সঙ্গে বন্ধুত্ব গড়ে তোলে। এক পর্যায়ে গভীর সম্পর্কে লিপ্ত হওয়াসহ বিয়ে বহিঃর্ভূত সম্পর্কেও জড়িয়ে পড়ে তারা। কিছু দিন এক সঙ্গে থাকার পর যখন বাড়ি ফিরে তখন সমাজ তাকে মেনে নেয়না। আর তখনি আত্মহত্যার পথে অগ্রসর হন তারা। পরীক্ষায় অকৃতকার্য হলে পরিবার ও সহপাঠীদের তিরস্কার ও অমানবিক আচরণ সইতে না পেরে আত্মহত্যার প্রবনতাও দেখা যায়। এক্ষেত্রে পরিবারকে দায়িত্ব নিয়ে নিজ নিজ সন্তানদের আগামীতে ভালো ফলাফলের জন্য উৎসাহী করে তুলতে হবে। আত্মহত্যা প্রতিরোধে সবার সম্মিলিত প্রচেষ্টা থাকতে হবে। পরিবার ও সমাজকে এগিয়ে আসতে হবে।’ ধর্মীয় অনুশাসন ও রাষ্ট্রীয় আইন মেনে চলাসহ শিক্ষক, মসজিদের ইমাম, মন্দিরের পুরোহিত জনপ্রতিনিধিরা স্ব স্ব অবস্থান থেকে জন-সচেতনতা সৃষ্টির মাধ্যমে আত্মহত্যা রোধ করা সম্ভব বলে মত প্রকাশ করেন জেলার এ চৌকস পুলিশ প্রধান।