মে ৮, ২০২১

লক্ষ্মীপুর নিউজ

দিন বদলের প্রত্যয়ে

চন্দ্রগঞ্জ পৌরসভা বাস্তবায়ন এখন সময়ের দাবী : এম আলাউদ্দিন

নিউজ ডেস্ক :
লক্ষ্মীপুরের প্রবীন রাজনীতিবিদ বীর মুক্তিযোদ্ধা এম আলাউদ্দিন লক্ষ্মীপুর নিউজের সাথে একান্ত সাক্ষাতকোরে বলেছেন, ‘চন্দ্রগঞ্জ ইউনিয়নকে পৌরসভা বাস্তবায়ন এখন চন্দ্রগঞ্জের সর্বস্তরের মানুষ ও সময়ের দাবী।’ স্বাক্ষাতকার নিয়েছেন পত্রিকাটির বার্তা সম্পাদক কামাল উদ্দিন।
সাক্ষাতকারে এ প্রবীন রাজনীতিবিদ আরো বলেন, ‘ চন্দ্রগঞ্জের দৈর্ঘ্য ১.২৫ কি:মি: প্রস্থ ০.৭৫ কি: মি:। এখানে প্রায় ৫০ হাজার মানুষের বসবাস। এ এলাকা লক্ষ্মীপুর ও নোয়াখালী জেলার সংযোগস্থল। জেলার চন্দ্রগঞ্জ থানা সদর দপ্তর লক্ষ্মীপুর-ঢাকা মহাসড়কের দু’পাশে অবস্থিত। জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবের কন্যা সফল প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা চন্দ্রগঞ্জকে শ্রীঘ্রই পৌরসভা ও উপজেলা ঘোষনা করবেন এমন প্রত্যাশায় এখানকার মানুষ এখন প্রহর গুণছেন। এখানে সোনালী ব্যাংকসহ ২২টি ব্যাংকের শাখা, অসংখ্য বীমা অফিস, সাব রেজিষ্ট্রি অফিস, ছোট ও মাঝারি ধরণের কয়েকটি শিল্প কারখানা, পাঁচটি বেসরকারি হাসপাতাল রয়েছে। এমন একটি গুরুত্বপূর্ণ এলাকায় স্থানীয় সরকারের গুরুত্বপূর্ণ অঙ্গ পৌরসভা বাস্তবায়ন করা চাই। সঠিক ও কার্যকর জন প্রতিনিধিত্ব মুলক পরিচালনা, ব্যবস্থাপনা গতিশীল করতে পৌরসভার প্রয়োজনীয়তা অত্যন্ত জরুরী। পৌরসভার কার্যক্রমের মাধ্যমে নাগরিকদের ভাগ্য উন্নয়ন ঘটে। চন্দ্রগঞ্জ ইউনিয়নের জনগণের চোখে উন্নয়নের স্বপ্নকে বাস্তবায়িত করতে হলে পৌরসভার বিকল্প নেই। সেই স্বপ্ন বাস্তবায়নের জন্য নিরলসভাবে কাজ করছি। নানা সমস্যায় জর্জরিত চন্দ্রগঞ্জবাসী একটু বৃষ্টিতেই পানিবন্দী হয়ে পড়ে। এখানে শিশুদের জন্য নেই কোন বিনোদন ব্যবস্থা। নেই বিশুদ্ধ পানি ও পয়ো:নিস্কাসন ব্যবস্থা। অবকাঠামোগত উন্নয়ন আশানুরুপ হয়নি। অবৈধভাবে ফুটপাত দখল করে অবৈধ ব্যবসা প্রতিষ্ঠান গড়ে তোলা হয়েছে। কোনভাবে অগ্নিকান্ডের ঘটনা ঘটলে বাজারের ব্যবসায়ীদের ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়। তাই দ্রুত চন্দ্রগঞ্জে একটি ফায়ার সার্ভিস স্টেশন জরুরীভাবে দরকার। এছাড়া বিদ্যুৎ ও গ্যাস ব্যবস্থা নিশ্চিত করাসহ পৌরসভা বাস্তবায়িত হলে আমার প্রিয় এলাকা চন্দ্রগঞ্জবাসীর ভাগ্যের পরিবর্তন হবে বলে বিশ্বাস করি।’